empty
 
 
বিটকয়েন নির্মাতার নাম প্রকাশ করেছেন এলন মাস্ক!

বিটকয়েন নির্মাতার নাম প্রকাশ করেছেন এলন মাস্ক!

বছরের পর বছর ধরে বিটকয়েন এর মূল্য ক্রমাগত বৃদ্ধি পাচ্ছে এবং এটি সবচেয়ে ব্যয়বহুল সম্পদের একটি হয়ে উঠেছে। সত্যিকারে, কেউই জানেন না ‘সাতোশি নাকামোটো’ ছদ্মনামের পিছনে কে আছে। নাকামোটো বিটকয়েনের প্রথম ব্লকচেইন মাইন করে এবং এই ডিজিটাল মুদ্রার জন্য ‘হোয়াইটপেপার’ প্রকাশ করে। যাইহোক, টেসলা এবং স্পেসএক্স -এর সিইও এলন মাস্ক বিশ্বাস করেন যে তিনি এই রহস্য ভেদ করেছেন।

লেক্স ফ্রিডম্যান পডকাস্টে কথা বলতে গিয়ে, এই উদ্যোক্তা ২০২১-এর সালতামামি করেছিলেন। তিনি ক্রিপ্টোকারেন্সির বিষয়েও সেখানে উল্লেখ করেন। পডকাস্ট –এর সঞ্চালক রসিকতা করেন যে মাস্ক নিজেই বিটকয়েনের স্রষ্টা বলে একটি গুজব ছিল। প্রযুক্তির অনন্য উদ্যোক্তা এলন মাস্ক এই দাবি অস্বীকার করেন এবং অপ্রত্যাশিতভাবে সম্ভাব্য স্রষ্টার নাম প্রকাশ করেন। তিনি বিটকয়েনের নির্মাতা হিসাবে কম্পিউটার বিজ্ঞানী নিক যাবোর নাম উল্লেখ করেন। মাস্ক অনুমান করেন যে নিক যাবোই বিশ্বের প্রথম ডিজিটাল সম্পদের তৈরীর পিছনে ছিলেন। "আপনি বিটকয়েন চালু করার আগে ধারণাগুলির বিবর্তন দেখতে পারেন এবং দেখতে পারেন যে এই ধারণাগুলি সম্পর্কে কে লিখেছেন৷ তিনি (নিক) নাকামোটো হওয়ার দাবি করেন না, তবে তা এখানে খুব একটা গুরুত্ব রাখে না৷ তবে মনে হচ্ছে অন্য যে কারো চেয়ে বিটকয়েনের পেছনের ধারণার জন্য তিনি আরও বেশি দায়ী ", মাস্ক উল্লেখ করেন।

এর আগে, স্পেসএক্স এবং টেসলার প্রাক্তন কর্মচারী সাহিল গুপ্ত অনুমান করেছিলেন যে এলন মাস্কই হলেন বিটকয়েনের রহস্যময় স্রষ্টা, সাতোশি নাকামোটো। ডিসেম্বরে, তিনি আরেকটি পোস্ট প্রকাশ করেছিলেন যেখানে তিনি টেসলার প্রাক্তন চিফ অফ স্টাফ স্যাম টেলারের সাথে একটি টেলিফোন কথোপকথনের কথা স্মরণ করেছিলেন। এলন মাস্কই সাতোশি কিনা টেলারকে এই প্রশ্ন করা হলে, তিনি একটি এলোমেলো উত্তর দিয়েছিলেন। তিনি ১৫ সেকেন্ডের জন্য নীরব ছিলেন। তারপর টেলার বললেন, "আচ্ছা, আমি কিই বা বলতে পারি?” “এটা কোনো পরিভাষা নয়, তিনি ঠিক এটাই বলেছিলেন," গুপ্তা তার পোস্টে এমনটাই লিখেছিলেন। যাবো নিজে অবশ্য অস্বীকার করেছেন যে তিনি নাকামোটোর পরিচয়ের পিছনে নেই। তিনি বলেন "আমার মনে হয় আপনি ভুল বুঝেছেন, আমাকে সাতোশি বলে ভুল তথ্য দিচ্ছেন, কিন্তু আমি এতে অভ্যস্ত।"

পিছনে

See also

এখন কথা বলতে পারবেন না?
আপনার প্রশ্ন জিজ্ঞাসা করুন চ্যাট.