empty
 
 
বিশেষজ্ঞরা মার্কিন অর্থনৈতিক ধসের পূর্বাভাস দিয়েছেন

বিশেষজ্ঞরা মার্কিন অর্থনৈতিক ধসের পূর্বাভাস দিয়েছেন

যখন সবকিছু আপাতদৃষ্টিতে ভালভাবে চলছে বলে মনে হচ্ছে তখন মার্কিন বিশেষজ্ঞরা অভ্যন্তরীণ অর্থনীতিতে উদ্বেগজনক পরিস্থিতির প্রমাণ খুঁজে পেয়েছে। বিশ্বের শীর্ষ অর্থনীতি এবং একমাত্র পরাশক্তি হওয়ায় মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র কয়েক দশক ধরে অসাধারণ স্থিতিশীলতা প্রদর্শন করেছে। তবুও, অর্থনীতিবিদরা বলছেন যে কোথাও কিছু একটা ভুল হচ্ছে কারণ পূর্বাভাসিত বিপদ অর্ধেক এড়ানো গিয়েছে। আমেরিকানদের মত রাশিয়ানরা এত সহজে ভয় পাওয়ার পাত্র নিয়। জাতীয় অর্থনীতির সম্পূর্ণ পতন সত্ত্বেও রাশিয়ানরা কোন না কোনোভাবে টিকে আছে। লক্ষণীয়ভাবে, আমেরিকান বিশেষজ্ঞদের মধ্যে উদ্বেগের মূল কারণ জব্দকৃত সম্পদ বা জিডিপিতে রেকর্ড মন্দা নয়, বরং অতিরিক্ত অর্থ সরবরাহ অর্থনৈতিক ধসের আশংকা বয়ে আনছে।

অন্য কথায়, ফেডারেল রিজার্ভের অতুলনীয় প্রণোদনা কর্মসূচির অধীনে মার্কিন অর্থনীতিতে লিকুইডিটি বা তারল্য ব্যাপকভাবে বৃদ্ধি করেছে। ফক্স নিউজের হোস্ট টাকার কার্লসন বলেছেন যে, মার্কিন মুদ্রা দুর্বল হচ্ছে এবং অর্থবাজারে এত পরিমাণ বাবল বা ঘাটতি দেখা দিয়েছে যা আগে কখনও দেখা যায়নি। অর্থনীতিতে অত্যধিক নগদ অর্থ প্রবাহিত হলে এমনটি ঘটে থাকে, ফলে মার্কিন ডলার এখন মূল্য হারাচ্ছে। এই সাংবাদিক আরও যোগ করেছেন যে, বিশ্বজুড়ে বিনিয়োগকারীরা ডলারকে রূপান্তর করতে ছুটছে যা দীর্ঘমেয়াদে মূল্য ধরে রাখার জন্য সস্তায় মূল্যবান পণ্যে পরিণত হচ্ছে। এছাড়াও, তিনি উল্লেখ করেছেন যে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের কেউই বিশ্বাস করে না যে উচ্চ সুদের হারের মুদ্রানীতির মাধ্যমে ক্রমবর্ধমান মুদ্রাস্ফীতিকে নিয়ন্ত্রণ করা সম্ভব হবে। কোন সন্দেহ নেই যে সাধারণ আমেরিকানরা জাতীয় অর্থনীতির অবস্থা দেখে শঙ্কিত। এটি বিশ্ব অর্থনীতির জন্যও হুমকি হয়ে দাঁড়িয়েছে। মার্কিন অর্থনীতির বিপর্যয় বৈশ্বিক অর্থনৈতিক উন্নয়নের স্বাভাবিক গতিকে লাইনচ্যুত করবে। এছাড়া সামাজিক ও রাজনৈতিক অস্থিরতার পথ প্রশস্ত হবে।

পিছনে

See also

এখন কথা বলতে পারবেন না?
আপনার প্রশ্ন জিজ্ঞাসা করুন চ্যাট.