Facebook
 
 

সূত্র

PPO = (EMA(12) – EMA(26) / EMA(26)) x 100

ট্রেডিঙে ব্যবহার

পিপিও এবং এমএসিডি এর মধ্যকার প্রধান পার্থক্য হল এমএসিডি দুটি মুভিং এভারেজের মধ্যে আসল পার্থক্য পরিমাপ করতে পারে যেখানে পিপিও মূলত শতকরা হিসেবে পার্থক্য নির্ণয় করে।

যদি ফাস্ট মুভিং এভারেজ (রেড লাইন) স্লো মুভিং এভারেজ থেকে বেশি হয় তাহলে মার্কেটে ঊর্ধ্বগতি থাকবে। ফাস্ট মুভিং এভারেজ যদি স্লো মুভিং এভারেজ থেকে বেশি হয় (ব্লু লাইন) তাহলে মার্কেট ঊর্ধ্বমুখী হবে। ২টি মুভিং এভারেজ এর সংযোগ বিন্দু হল মার্কেটে এই নির্দেশনায় পৌঁছানোর পথ।

নির্দেশকটির এসংক্রান্ত যে বিশেষ বৈশিষ্ট্য মনে রাখা উচিৎ তা হল জিরো লেভেলে একক লাইন ক্রস করা। নিচের থেকে যদি ক্রস হয় তাহলে স্থিতিশীল ট্রেড সম্ভব এবং এভাবে কেউ বাই কিনবে বা অপেক্ষা করবে। জিরো লাইন যদি এমএ সিংনাল ক্রস করে তাহলে কারো উচিৎ নিম্নমুখী প্রবণ হয়ে পরিচালনা করা।

এমএসিডি এর মত মূল্য উঠানামার পিপিও নির্দেশকের ডাইভার্জেন্স এবং কনভার্জেন্স এর পরিস্থিতি উল্লেখ করে। ডাইভার্জেন্স দেখা গেলে মূল্যের দ্রুত নিম্নগতি দেখা যায়। একইভাবে মূল্য পতনের সময় যদি কনভার্জেন্স দেখা যায় তাহলে ভবিষ্যতে মূল্য ঊর্ধ্বমুখী জন্য এটি একটি সংকেত।

পিপিও নির্দেশক

ডাউনলোড


তালিকায় ফিরে যান
এখন কথা বলতে পারবেন না?
আপনার প্রশ্ন জিজ্ঞাসা করুন চ্যাট.